বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:৪৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম
রূপগঞ্জে উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত তোমরা শিশুরা আগামী দিনের দেশ ও জাতির অহংকার রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আনোয়ার হোসেন খাজা অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগে তিনজনকে হাতেনাতে আটক নওগাঁর পোরসায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে চেক প্রদান কবর থেকে সমনগর উচ্চ বিদ্যালয় এর অফিস সহায়কের লাশউত্তোলন কিডস ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণ রূপগঞ্জে পূর্বশত্রুতার জেরে দুই জনকে পিটিয়ে আহত//প্রতিপক্ষের বাড়িতে হামলা ভাংচুর// থানায় পাল্টা পাল্টি অভিযোগ রূপগঞ্জকে একটি সুন্দর রূপগঞ্জ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই- সেলিম প্রধান নরসিংদীতে ভয়েজ বিডি ২৪.কম সম্পাদকের আমন্ত্রণে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ভিসির আগমন।

রাঙামাটিতে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের দায়ে, (এক) যুবককে যাবজ্জীবন,কারাদণ্ড

মোঃ মোশারফ হোসেন সেলিম জেলা প্রতিনিধি / ৫০০ Time View
Update : বৃহস্পতিবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২৪

রাঙাামাটিতে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক ছাত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণের দায়ে আসামি মো. ইব্রাহিমকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। সোমবার সকালে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এইএম ইসমাইল হোসেন এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ে উল্লেখ করা হয়, আসামি মো. ইব্রাহীমকে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ এর ৯ (১) ধারায় অপরাধ দোষী সাব্যস্ত করা হওয়ায় আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড এবং এর অতিরিক্ত ১ লাখ টাকা জরিমানা দন্ড প্রদান করা হয়। আসামীকে ৯০ দিনের মধ্যে এই জরিমানর অর্থ বিধি মোতাবেক জমা দানের নির্দেশ দেয়া হয়। পরিশোধিতকৃত অর্থ এই মামলার ভিকটিম ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রাপ্ত হবেন।

রায়ে আরও উল্লেখ করা হয়, গত ১৫ জুলাই ২০১১ সালে রাঙামাটি জেলার লংগদু উপজেলার উল্টাছড়ি এলাকায় সপ্তম শ্রেণিতে পড়–য়া ১৩ বছর বয়সী কন্যাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। পরবর্তীতে ভিকটিমের পিতা লংগদু থানায় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।
রাষ্ট্র পক্ষ উপস্থাপিত সাক্ষীদের মৌখিক, দালিলিক, ফরেনসিকস সাক্ষ্য ও পারিপাশির্^ক সাক্ষ্য পর্যালোচনায় রাষ্ট্রপক্ষ আসামির বিরুদ্ধে গঠিত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়।

আসামী পক্ষের আইনজীবি এই রায়ে সংক্ষুব্ধ হয়ে বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের যাওয়ার কথা বলেন। অন্যদিকে রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবি এই রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করনে। এবং এই রায়ের মাধ্যমে সমাজে এই ধরনের ঘটনা কমে আসবে তিনি মনে করেন।

আসামি, পক্ষের আইনজীবি কাজী মঈনুল ইসলাম হাসান বলেন, আমরা বিজ্ঞ আদালত ওনার চিন্তা চেতনায় যেটা সঠিক মনে হয়েছেন সেই বিষয়ে রায় দিয়েছেন। কিন্তু আমরা এই রায়ে সংক্ষুব্ধ। এই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের যাবো। আশা করছি
আমরা উচ্চ আদালত থেকে আসামিকে নির্দোষ প্রমাণ করতে পারবো,সেই আশা করি

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবি পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাড. সাইফুল ইসলাম অভি, বলেন, রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করছি। আশা করছি এই রায়ের মাধ্যমে সমাজে এই ধরনের ঘটনা কমে আসবে,বলে


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
এক ক্লিকে বিভাগের খবর