রবিবার, ১৬ মে ২০২১, ০৩:৩২ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
মুক্তাগাছায় অগ্রদূত সমাজকল্যাণ পরিষদ এর ঈদ সামগ্রী বিতরণ ডেমরাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা থানার তদন্ত অফিসার জনাব ইসমাইল হোসেন দেশবাসীকে পবিত্র ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সাংবাদিক আহসান হাবীব বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৭টায় ৬৬ নং ওয়ার্ডবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন সারুলিয়া ইউপিঃ সাবেক সদস্য জনাব নাসির উদ্দীন ৬৬ নং ওয়ার্ড বাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকুর রহমান  ডেমরাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাবু  ডেমরায় সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে খাবার বিতরণ দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড.রফিকুল ইসলাম খান মাসুদ ডেমরাবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মশিউর রহমান মোল্লা (সজল)

ডেমরায় হেলথ কেয়ার হসপিটালে র‍্যাবের অভিযান

ডেমরা প্রতিনিধিঃ

রাজধানীর ডেমরায় ভূয়া ডাক্তার আটকসহ অবৈধ ওষুধ জব্দ করেছে র‌্যাব-৩ এর ভ্রাম্যমান আদালত। র‌্যাব সদর দফতরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর নেতৃত্বে ডেমরার হাজীনগরস্থ এস.এইচ.এস হেলথ কেয়ার হসপিটাল এন্ড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক্স-এ এ অভিযান পরিচালিত হয়।

দীর্ঘ দিন প্রতারনা করে বিভিন্ন রোগীকে চিকিৎসা দিয়ে আসছেন।
স্বাস্থ্য অধিদফতরের মেডিকেল অফিসার (হসপিটাল সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট) ডা. দেওয়ান মোহাম্মদ মেহেদি হাসান, হাসপাতালটিতে সরকার নিষিদ্ধ টেপেন্টা ওষুধ ও যৌন উত্তেজক ওষুধ পাওয়া গেছে। এছাড়া হাসপাতালের নিচে একটি ফার্মেসিতেও বিভিন্ন কোম্পানির মেয়াদ উত্তীর্ন ওষুধ ও স্যালাইন পাওয়া গেছে যা মানব দেহে প্রবেশের সাথে মানুষের মৃত্যুর ঘটতে পারে। পাশাপাশি এখানে কার্বন ডাই অক্সাইডের সিলিন্ডারকে অক্সিজেন সিলিন্ডারে রূপান্তর করে ব্যবহার করা হয়েছে। এতে রঙ করা পুরাতন ওই সিলিন্ডারগুলো যে কোন বিস্ফোড়ন হতে পারে।

এ বিষয়ে ওষুধ প্রশাসন অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মো. আব্দুল মালেক বলেন, ভূয়া ডাক্তার শওকত হোসেন সুমন ২ বছর ধরে হাসপাতালটি পরিচালনা করলেও গত দেড় বছর আগেই হাসপাতালের রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ শেষ হয়েছে। শওকত হোসেন সুমন নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিলেও তার বৈধ কোন সার্টিফিকেট ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।
অভিযানে র‌্যাব-৩ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক আবু জাফর বলেন, শওকত হোসেন সুমন নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিলেও আসলে তিনি কোন ডাক্তার নয়। পুরুষ ও মহিলা দুই জন রোগীকে দেখার সময় তাকে হাতেনাতে ধরা হয়েছে। এদিকে র‌্যাবের পরিচয় পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অভিযুক্ত শওকত হোসেন তার প্রেসক্রিপসন ছিড়ে ফেলার চেষ্টা করলে র‌্যাব তা ধরে ফেলেন। অভিযান চলাকালীন হাসপাতালে অনেক রোগীকে চিকিৎসা নিতে আসতেও দেখা গেছে। পরে সুমনের প্রকৃত পরিচয় পেয়ে রোগীরা চিকিৎসা না নিয়ে চলে গেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 dailydeshamar
Design & Developed BY Freelancer Zone