শুক্রবার, ২৯ অক্টোবর ২০২১, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম :
ডেমরায় বর্জ্য অপসারণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করলেন কাউন্সিলর হাজী আতিকুর রহমান অবৈধভাবে এমপি’র বাড়ির সীমানা প্রাচীর ভাঙ্গলো ডিএসসিসি ডিএসসিসির ৬৪ নম্বর ওয়ার্ডের বর্জ্য স্থানান্তর কেন্দ্রের উদ্বোধন করলেন মেয়র তাপস ঢাকা দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি কামরুল হাসান রিপনের পিতার মৃত্যুতে ডেমরা থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের শোকবার্তা ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে কদমতলীতে দেশ ল্যাবরেটরীজ ঔষধ কোম্পানীর মালিক গ্রেফতার শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হকের ১৪৮তম জন্মবার্ষিকীতে তাঁর স্মৃতির প্রতি বাউবির ছাত্র ঐক্য পরিষদের শ্রদ্ধাঞ্জলি সম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বাউবির ছাত্র ঐক্য পরিষদের সম্প্রীতির সমাবেশ ও শোভাযাত্রা জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস -২১ উপলক্ষে ট্রাফিক-ডেমরা জোনের সচেতনতামূলক প্রচারণা কার্যক্রম অনুষ্ঠিত কক্সবাজারের উখিয়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পে ২ গ্রুপের সংঘর্ষে ৭ রোহিঙ্গা নিহত এক হাজার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলেন কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ

সিদ্ধিরগঞ্জে হেনকাপ নিয়ে পালিয়েছে মাদক ব্যবসায়ী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে পুলিশের হাত থেকে হেনকাপ নিয়ে পালিয়েছে মাদক ব্যবসায়ী নাসির। আটকের পর ছেড়ে দিতে দেনদরবার করার সুযোগে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় সে দৌঁড়ে পালায়। পরে সারারাত অভিযান চালিয়ে তার স্বজনসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করলেও নাসির রয়েছে অধরা।

জানা গেছে, ডেমরা থানার এসআই নাজনিন আক্তার গত মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের বাঘমারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে মৃত জাফরের ছেলে নাসিরকে আটক করে। তাকে হেনকাপ পড়িয়ে গাড়িতে উঠানোর সময় সে পালিয়ে যায়। পরে ডেমরা থানার ওসি নাসির উদ্দিনসহ পুলিশের তিনটি টিম সন্ধ্যা থেকে রাতভর অভিযান চালিয়ে নাসিরের মা নাসিমা, স্ত্রী শারমীন, আত্বীয় মামুন,উজ্জল ও মোহরকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশের দাবি তাদের কাছ থেকে ইয়াবা, হেরোইন ও গাঁজা উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু নাসিরকে গ্রেপ্তার ও হেনকাপ উদ্ধার করতে পারেনি। তবে নাসিরকে মামলার আসামি করা হয়েছে।

নাসিরের বোন জেয়াসমিন বেগম জানায়, নাসিরকে আটকের পর এসআই নাজনিন ছেড়ে দেওয়ার জন্য এক লাখ টাকা দাবি করে। এত টাকা দেওয়ার সামর্থ নেই বললে নাসিরকে থানায় নিয়ে যেতে গাড়িতে তুলার সময় সে হেনকাপসহ দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

জেয়াসমিনের অভিযোগ,কয়েকমাস আগে বাঘমারা এলাকা থেকে নাসির ও ডেমরা থানার এএসআই ইমামকে ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১০। ওই মামলায় এক সপ্তাহ আগে নাসির জামিনে বের হয়। পুলিশ সদস্য ইমামকে র‌্যাব গ্রেপ্তার করার পর থেকেই এসআই নাজনিন আমাদের পরিবারের সদস্য ও আতœীয় স্বজনকে গ্রেপ্তার ও মারধর করে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েও মামলা দিচ্ছে। সিদ্ধিরগঞ্জর থেকে গ্রেপ্তার করে মামলায় ঘটনাস্থল উল্লেখ করা হয় ডেমরার বক্সনগরসহ আশপাশ এলাকা।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, নাসির পালিয়ে যাওয়ার পর থেকেই বাঘমারা, নিমাইকাশারী এলাকায় ব্যপক অভিযান চালায় ডেমরার পুলিশ। এসআই নাজনিন বহিরাগত লোকজনসহ লাঠি-সোটা নিয়ে এলাকার অলিগলিতে মোহড়া দিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।

অভিযোগ জানা গেছে, গত দুই জুন এসআই নাজনিন নাসিরের বোন জেয়াসমিন বেগম (৩৫) ও রিতা বেগম (৩০) কে আটক করে ছেড়ে দেওয়ার কথা বলে দেড় লাখ টাকা নিয়ে চারশত গ্রাম গাঁজা উদ্ধার দেখিয়ে মামলা দেয়। এছাড়াও নাসিরের একাধিক আতœীয়কেও একই কায়দায় অর্থ হাতিয়ে নিয়ে ডেমরা থানায় মামলা দিয়েছে নাজনিন আক্তার।

জানতে চাইলে এসআই নাজনিন আক্তার অর্থ দাবি ও হেনকাপ নিয়ে নাসির পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি সঠিক নয় দাবি করে বলেন, তাকে আটক করে হেনকাপ লাগানোর সময় পালিয়ে গেছে। তবে পাঁজনকে মাদকসহ আটক করা হয়েছে। নাসিরকে আটক করতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকেই অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

মাদক ব্যবসায়ী নাসির হেনকাপ নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি জানেনা বলে জানান ডেমরা থানার ওসি নাসির উদ্দিন। তবে নাসিরকেও মামলার আসামি করা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মশিউর রহমান বলেন,ডেমরা থানার অভিযানের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2017 dailydeshamar
Design & Developed BY Freelancer Zone