রাজধানী মাতুয়াইল ও ডেমরা এলাকা অবৈধ গ্যাস লাইন নিয়ে বিষাক্ত রাসায়নিক পর্দাথে নিম্নমানের মশার কয়েল এর অসংখ্য কারখানা দীর্ঘদিনে রমরমা ব্যবসা করছে - দৈনিক দেশ আমার
রবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, রাত ৯:০৪

শিরোনামঃ

রাজধানী মাতুয়াইল ও ডেমরা এলাকা অবৈধ গ্যাস লাইন নিয়ে বিষাক্ত রাসায়নিক পর্দাথে নিম্নমানের মশার কয়েল এর অসংখ্য কারখানা দীর্ঘদিনে রমরমা ব্যবসা করছে

শরীফ আহমেদ বিশেষ প্রতিবেদনঃ

 

রাজধানী ঢাকাসহ আশপাশের জেলাগুলোতে অনুমোদনহীন নিম্নমানের মশার কয়েল পরিবেশে বিষ ছড়াচ্ছে। এতে শিশুসহ সব বয়সী মানুষ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। এক শ্রেণির অসাধু ও মুনাফালোভী ব্যবসায়ী এ অবৈধ মশার কয়েল উৎপাদন ও বাজারজাত করণে জড়িত। কোনো ধরনের বিএসটিআই লাইসেন্স না থাকায় সরকারও কোটি টাকার রাজস্ব হারাচ্ছে। অনুসন্ধানে জানা যায়, অধিকাংশ ক্ষেত্রে বাসা-বাড়ি ভাড়া নিয়ে কারখানা তৈরি করে ক্ষতিকর এ মশার কয়েল উৎপাদন করা হয়। এসব কারখানায় যেকোনো ব্র্যান্ডের মশার কয়েল যে কেউ অর্থের বিনিময়ে তৈরি করে নিচ্ছে। এখান থেকে তৈরি মশার কয়েল দেখতে হুবহু আসল মশার কয়েলের মতো। যা কিনে মানুষ প্রতারিত হচ্ছে। সরেজমিন দেখা গেছে, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী জোটবদ্ধ হয়ে দীর্ঘদিন এসব মশার কয়েল কারখানায় কোনো কেমিস্ট ছাড়াই মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে ভেজাল ও নিম্নমানের মশার কয়েল প্রস্তুত করছে। যা মানবদেহের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর। বিশেষ করে রাজধানী যাত্রাবাড়ী, মাতুয়াইল,দক্ষিণ পাড়া,মাতুয়াইল বানিয়াবাগ,ডগাই দরবার শরীফ রোড,বড়ভাঙ্গা,হাজী নগর, পাইটি,ডেমরা, মেরাজনগর,কদমতলী, শ্যামপুর, নারায়ণগঞ্জ সানারপাড়, সৈয়দপুর, ফতুল্লা কাশীপুরসহ ঢাকার আশ-পাশের আবাসিক এলাকায় ব্যাঁঙ্গের ছাঁতার মতো গড়ে ওঠেছে এসব অনুমোদনহীন মশার কয়েল কারখানা। এসব কারখানায় নেই কোনো সরকারি অনুমোদন। প্রশাসনের নাকের ডগায় অনেক ক্ষতিকর এ মশার কয়েল কারখানা রয়েছে। অবাক হলেও সত্য এ ব্যাপারে কয়েকটি কারখানার মালিক বলেন, মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক পদার্থ না দিলে মশা মরে না। তাই বেশি মাত্রায় রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহার করতে হয়। তবে বিশেষজ্ঞদের মতে মাত্রাতিরিক্ত রাসায়নিক পদার্থ ও অনুমোদনহীন বিষাক্ত মশার কয়েল মানুষ দীর্ঘমেয়াদী ব্যবহার করলে দূষিত ধোঁয়ায় মানবদেহের শ্বাসকষ্ট ব্রঙ্কাইটিস, হাঁপানি, চোখ জ্বালা-পোড়াসহ ক্যান্সার, কিডনি, লিভার নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে ৯৫%।এছাড়া গর্ভবতী নারীদের গর্ভস্থ শিশুদেরও বিকলাঙ্গতাসহ মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। অনুমোদনহীন বিষাক্ত মশার কয়েলে শুধু ভোক্তা নয় প্রাণিরও ক্ষতি হয়। কারণ বিষাক্ত কয়েলের ছাই পরিবেশে মিশে প্রাণিরাও স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ে। অন্যদিকে শিশু ও বয়স্করা বিভিন্ন প্রাণঘাতী রোগের মুখে বেশি পড়ছেন এসব ভেজাল ও নিম্নমানের মশার কয়েলর দূষিত ধোঁয়ায়। অন্যদিকে কয়েল উৎপাদন কারখানার শ্রমিকদের ঝুঁকি আরও মারাত্মক। বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেছেন, অনুমোদনহীন বিষাক্ত মশার কয়েলের কাজ মশা তাড়ানো, মশা মেরে ফেলা নয়। অথচ বাজারে এখন এমন কয়েলও পাওয়া যাচ্ছে যাতে মশাই নয়, তেলাপোকা, টিকটিকিও মরে যাচ্ছে। এটা মানব স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক হুমকি স্বরূপ। এ ব্যাপারে বিএসটিআইয়ের সহকারী পরিচালক রিয়াজুল হক বলেন, আমরা এ ব্যাপারে পদক্ষেপ নিচ্ছি। শিগগিরই আমরা কিছু অসাধু কয়েল ফ্যাক্টরির বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করবো। বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থা মশার কয়েলে সর্বোচ্চ শূন্য দশমিক তিন (০.৩) মাত্রার ‘একটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট’ ব্যবহার নির্ধারণ করেছে। এ মাত্রা শুধুমাত্র মশা তাড়াতে কার্যকর, মারতে নয়। কিন্তু বাস্তবে দেখা যায়, অনুমোদনহীন ব্যবসায়ী মহলের প্রস্তুত ও বাজারজাতকৃত কয়েলে শুধু মশাই নয়, বিভিন্ন পোঁকামাকড়, তেঁলাপোকা এমনকি টিকটিকি পর্যন্ত মারা যায়! বালাইনাশক অধ্যাদেশ- (পেস্টিসাইড অর্ডিন্যান্স ১৯৭১ ও পেস্টিসাইড রুলস ১৯৮৫) অনুসারে মশার কয়েল উৎপাদন, বাজারজাত ও সংরক্ষণে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের অনুমোদন বাধ্যতামূলক। অধ্যাদেশ অনুযায়ী- অধিদপ্তরের অনুমোদন পাওয়ার পর পাবলিক হেলথ প্রোডাক্ট (পিএইচপি) নম্বর ও বিএসটিআইয়ের অনুমোদন নিয়েই সংশ্লিষ্ট কোম্পানিকে বালাইনাশক পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাত করার কথা। কিছু অসাধু কোম্পানির প্যাকেটের গায়ে কয়েলে ব্যবহৃত কেমিক্যালের পরিমাণ বিশ্ব স্বাস্থ্যসংস্থার নির্দেশিত অনুমোদিত মাত্রার উল্লেখ থাকলেও এসব কয়েলে প্রকৃতপক্ষে কেমিক্যাল অনেক বেশিমাত্রায় ব্যবহার করছে। অনুসন্ধানে দেখা যায়, বিএসটিআইয়ের অনুমতি তালিকার বাইরে বাজারে- ফাইটার কিং,পান্ডা,জাম্বু ফাইটার,সেভেন ভোস্টার ,সুপার ডিসকভারি, প্যাগোডা গোল্ড, তুলসিপাতা, সেফগার্ড, লিজার্ড মেগা, বস সুপার, টাটা হাইস্পিড, মেট্রো, সুপার জাদু, মারুফ পাওয়ার ম্যাজিক, সোলার, মাছরাঙা,ব্ল্যাক কেট, মেঘা, বাংলা কিলার, হান্টার, বিচ্ছু, চমক, সুপার যাদু, রকেট, সুপার যাদু ব্র্যান্ডের কয়েল অবাধে বিক্রি হচ্ছে। এসব কয়েলের গায়ে ঢাকা, ভৈরব কিংবা চট্টগ্রাম লেখা থাকলেও পূর্ণাঙ্গ কোনো ঠিকানা নেই। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এসিআই ও রেকিট অ্যান্ড বেনকিইজারসহ মশার কয়েল উৎপাদনকারী কয়েকটি স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান ছাড়া বাজারে বেশির ভাগ কয়েলই সঠিক প্রক্রিয়ায় মান নিয়ন্ত্রিত ও অনুমোদিত নয় এবং বিষাক্ত কেমিক্যালযুক্ত যা স্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক।এ ধরনের মারাত্মক ক্ষতিকর কয়েল উৎপাদন ও বাজারজাত করছে ৫০/৬০টি দেশি বেনামি কারখানা। ভুয়া পিএইচপি নম্বর ও বিএসটিআই’র লোগো ব্যবহার করে আকর্ষণীয় মোড়কে এসব কয়েল বাজারে ছাড়া হচ্ছে। এছাড়া বিদেশ থেকে আমদানি করা হচ্ছে উচ্চমাত্রার একটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট সম্পন্ন চায়না কয়েল। দেশের বাজার এসব কয়েলে সয়লাব হলেও সংশ্লিষ্টদর কোনো নিয়ন্ত্রণ নেই। জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, অনুমোদনহীন কয়েলে ‘একটিভ ইনগ্রেডিয়েন্ট’ (কেমিক্যাল) ও ডিডিটি এ্যানডিন ব্যবহারের ফলে ক্যান্সার, শ্বাসনালীতে প্রদাহসহ বিকলাঙ্গতার মতো ভয়াবহ রোগ হতে পারে। এমনকি গর্ভের শিশুও এসব ক্ষতির শিকার হতে পারে। খাদ্যে ফরমালিন ও পানিতে আর্সেনিকের প্রভাব যেমন দীর্ঘমেয়াদি, তেমনি এসব কয়েলের বিষাক্ত উপাদান মানুষের শরীরে দীর্ঘমেয়াদি জটিল রোগের বাসা তৈরি করছে।ডেমরা ডগাই দরবার শরীফ রোডে তোফাজ্জল,খায়ের,সোবহান সহ এদের সবার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকবার ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাধ্যমে জরিমানা করে সিলগালা করার পরও,আগের মত অবস্হা ব্যবসা করছে। এরা সবাই অবৈধ গ্যাস নিজ নিজ কারখানায় ব্যবহার করছে।অএ এলাকায় অনুমোদন হীন নিম্নমানের কয়েল কারখানা যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে।

Share

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে নবগঠিত পুর্নাঙ্গ কমিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি

গাইবান্ধা-০৫ আসনে নৌকার টিকেট পেলেন মাহমুদ হাসান রিপন

দৈনিক গণজাগরণ পএিকার প্রতিষ্ঠাতা প্রকাশক মরহুম অধ্যাপক জনাব,দীন মোহাম্মদ ভুঁইয়া সাহেবের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে নিজ বাস ভবনে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে

পদ ক্ষমতার জন্য আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আসেনি,এসেছি সমাজ থেকে সন্তাস,মাদক,ভূমিদস্যুদের নির্মুল করে সাধারণ মানুষের সেবা করতে ও দুঃখ দূর্দশা লাঘব করতে – মোঃ মামুন সাহেব

কুপ্রস্তাবের অভিযোগ করায় হাসপাতালের নারী কর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি

বেনাপোল সীমান্তে ৩০ টি সোনার বার সহ ১ যুবক আটক

২ বছর ধরে স্বামী প্রবাসে, সন্তান প্রসবের পর হাসপাতাল থেকে পালালেন গৃহবধূ

দুমকির সেই কলেজের এডহক কমিটি গঠন

পাবনায় আওয়ামীলীগ নেতাকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যা

পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামীলীগে সভাপতির মনোনয়ন জমা

ডেমরা থানা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক পদে ব্যাপক আলোচনা কেন্দ্রবিন্দু সিফাত সাদেকিন চপল

“Press Release” Today is the 5 th Death Anniversary of Shaafi Hossain Chisty Yousha

তুরাগে মারা যাওয়ার ১০বছর পর এক হিজড়া সম্প্রদায়ের লাশ উত্তোলন

ঐতিহ্যবাহী ডেমরা থানা আওয়ামীলীগ ও ডেমরা থানা অর্ন্তভুক্ত দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ৬৪/৬৬/৬৭/৬৮/৬৯/৭০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে

পুলিশের উজ্জ্বল নক্ষত্র ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এক অনবদ্য নাম

ডিএসসিসি-৬৫ নং ওয়ার্ডে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে রাজউক

রাজধানী মাতুয়াইল ও ডেমরা এলাকা অবৈধ গ্যাস লাইন নিয়ে বিষাক্ত রাসায়নিক পর্দাথে নিম্নমানের মশার কয়েল এর অসংখ্য কারখানা দীর্ঘদিনে রমরমা ব্যবসা করছে

এক সময় স্থানীয় বিএনপি নেত্রী থেকে বর্তমানে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর নিলুফা ইয়াসমিন লাকীর ময়লার বানিজ্য একচ্ছত্র আধিপত্য এবং নারী কাউন্সিলর হওয়ার নেপথ্যে কারা

আলোকিত মানুষ,রাজউকের ইমারত পরিদর্শক নির্মল মালো

চাদঁপুরের হাইমচরে চেয়ারম্যান কর্তৃক জেলেদের চাল পাচারকালে চালসহ আটক ১

রাজধানী ডেমরার হাজী বাদশা মিয়া রোডে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মনিরের উৎপাতে অতিষ্ট এলাকাবাসী

গ্রাহকের টাকা নিয়ে নয়-ছয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের

প্রবাসীদের অর্থায়নে ঈদ উপহার বিতরণ

সেহরির সময় হলেই খাবারের ব্যাগ হাতে যুব অধিকার পরিষদ।

ডেমরায় সন্ত্রাসী কায়দায় বাড়িতে হামলা ও দোকান লুটপাটঃ গ্রেফতার ৩

ঢাকা-০৫ আসনে একাধিক প্রার্থীঃআলোচনার শীর্ষে নেহরীন মোস্থফা দিশি

আগে পণ্য পরে টাকা: স্বাগত জানাল কিউকম

ডেমরায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় অজ্ঞাতনামা অটোরিকশা চালক নিহত

ডেমরায় হেলথ কেয়ার হসপিটালে র‍্যাবের অভিযান

ডেমরায় হত্যাচেষ্টা মামলার মূল নায়ক প্রেমিক ফাহাদকে ধরতে তৎপর প্রশাসন,মিলছে না খোঁজ

নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর ‘ইভ্যালি’

দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা থানার তদন্ত অফিসার রফিকুল ইসলাম

দীর্ঘ দেড় যুগ পর চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

নূর নবীকে ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী

দেড় যুগ পর অবশেষে ডেমরা থানা ছাত্রলীগের প্রতিটি ওয়ার্ডের সফল কমিটি ঘোষিত

বরপা পিজিওন ক্লাবের পূর্নমিলণী ও সভা অনুষ্ঠিত

ডিএসসিসির ৬৪,৬৫ ও ৬৬ নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলরের টেন্ডার বানিজ্য,ভোগান্তির শিকার এলাকাবাসী

ছেলে ও ছেলের প্রেমিকাকে হত্যা করল বাবা!

বিজয়ের বর্ণিল সাজে সেজেছে কবি নজরুল কলেজে


উপরে