পুলিশের উজ্জ্বল নক্ষত্র ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এক অনবদ্য নাম - দৈনিক দেশ আমার
রবিবার, ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সন্ধ্যা ৭:৩৩

শিরোনামঃ

পুলিশের উজ্জ্বল নক্ষত্র ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এক অনবদ্য নাম

নজরুল ইসলাম বাবু বিশেষ প্রতিবেদনঃ

 

পুলিশি সেবার বাইরে গিয়ে মানবিক কাজ করতে তিনি সবসময় ভালোবাসেন। সময় পেলেই কাছে টেনে নেন সুবিধাবঞ্চিতদের। তিনি বদলে দিয়েছেন সমাজের পিছিয়ে পড়া বেদে সম্প্রদায় ও তৃতীয় লিঙ্গের মানুষকে। কাজ করছেন যৌনপল্লীর শিশুদের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়াতে। শুধু তাই নয়, ভালো কাজ করতে সহযোগিতার পাশাপাশি দেন দিক নির্দেশনাও। এজন্য খ্যাতি আছে মানবিক পুলিশ অফিসার হিসেবে। তার নাম হাবিবুর রহমান। বর্তমানে তিনি ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজির পদে দায়িত্ব পালন করছেন।

পুলিশের গুরুত্বপূর্ণ সব দায়িত্বে থেকেও নিজেকে কর্মের গণ্ডির মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখেননি ডিআইজি হাবিবুর রহমান। নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন সাধারণ মামব সেবায়।

অবহেলিত জনগোষ্ঠীর উন্নয়নে তিনি ২০১৪ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠা করেন ‘উত্তরণ ফাউন্ডেশন’। বর্তমানে সাভার ছাড়াও মুন্সীগঞ্জ, গাজীপুর, সিলেট, সুনামগঞ্জ ও সিংড়া এলাকার পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর মানুষদের নিয়ে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি।

মেধাবী, সৎ ও চৌকস এই পুলিশ অফিসার ১৯৬৭ সালে গোপালগঞ্জের দক্ষিন চন্দ্র দিঘলিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৭তম বিসিএসে পুলিশ ক্যাডারে তিনি সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে যোগ দেন।

কর্মক্ষেত্রে সততা, সাহসিকতা, দক্ষতা,ন্যায়পরায়নতা আর সময়োপযোগী ও দূরদর্শী নেতৃত্বে গুণের কারণে এরই মধ্যে সুখ্যাতি পেয়েছেন তিনি। তিনবার বাংলাদেশ পুলিশ পদক (বিপিএম) ও দুইবার রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পিপিএম) পেয়েছেন।

পেশাগত কাজের বাইরে লেখালেখিও করেন। এ ছাড়াও তিনি একজন ক্রীড়া সংগঠকও। কাজ করছেন দেশের জাতীয় খেলা কাবাডি নিয়েও।
লেখালেখিতে ডিআইজি হাবিব ভীষণ পার্রদশী।
কর্মক্ষেত্রের বাইরে অবসর সময়ে প্রতিনিয়ত বই পড়েন পুলিশের এই কর্মকর্তা। তাছাড়া তিনি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালকে নিয়ে বই সম্পাদনা করেছেন, যাতে দেখিয়েছেন দূরদর্শিতা। বইটিতে তুলে আনেন মন্ত্রীর বাল্যকাল, পড়াশোনা, মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণসহ রাজনীতিতে অংশ নেওয়ার বিষয়াবলী। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে প্রকাশিত হয় ‘নন্দিত স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান খান’ গ্রন্থটি। বইটি প্রকাশ করে পাঞ্জেরী পাবলিকেশন্স লিমিটেড।

এছাড়া ২০১৮ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে পুলিশের ভূমিকা তুলে ধরে একটি বই সম্পাদনা করেন ডিআইজি হাবিব। যার নাম দেন ‘মুক্তিযুদ্ধে প্রথম প্রতিরোধ’।

এ বছর নিজেই লিখেছেন বেদে সম্প্রদায়ের বিলুপ্ত প্রায় ভাষা নিয়ে ‘ঠার’ নামে একটি বই। দেশবরেণ্য গুণীজনের উপস্থিতিতে বেশকিছু দিন আগে বইটির মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ‘ঠার’ এর বেশির ভাগ শব্দই বাংলা ভাষার আদি রূপ থেকে উদ্ভূত। ভাষাটির নেই কোনো বর্ণ বা লিপি। মূলত এটি কথ্য ভাষা। ‘ঠার’ বেদেদের মাতৃভাষা। যা সাধারণ মানুষের বোধগম্যের বাইরে। যদিও ভাষাটি নিয়ে খুব বেশি গবেষণা হয়নি। ব্যক্তি উদ্যোগে কয়েক জন গবেষক ‘ঠার’ ভাষা নিয়ে করেছেন গবেষণা। তবে ‘ঠার’ নিয়ে লেখা হয়নি কোনো গ্রন্থ কিংবা পাণ্ডুলিপি।

ডিআইজি হাবিবুর রহমান ‘ঠার’ বই প্রসঙ্গে দৈনিক গণজাগরণকে জানান, বেদে জনগোষ্ঠীর ভাষা বইটি দীর্ঘ আট বছর গবেষণার ফসল। যেহেতু ‘ঠার’ বা ‘ঠের’ ভাষাটির লিখিত কোনো রূপ নেই, সেহেতু শব্দটির কোনটি সত্য তা বলা মুশকিল। তাদের মাধ্যমে ভাষাটির শব্দ, ব্যাকরণ উদ্ধারের চেষ্টা করেছি। কখনো কখনো বেদেপল্লীতে উপস্থিত হতে না পারলে বেদেদের আমার অফিসে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তাদের সঙ্গে কথা বলে অজানা ভাষাটিকে একটি পূর্ণাঙ্গ বই হিসেবে লিখিত রূপ দেওয়ার চেষ্টা করেছি।

বইমেলায় সাড়া ফেলেছে ‘ঠার’
বেদে জনগোষ্ঠীর ভাষা নিয়ে গবেষণামূলক গ্রন্থটি এবারের অমর একুশে বইমেলায় বেশ সাড়া ফেলেছে। পাঞ্জেরী পাবলিকেশন থেকে প্রকাশিত বইটির পাঠক চাহিদা বেশ ভালো বলে জানিয়েছে প্রকাশনী প্রতিষ্ঠানটি। তারা বলছে, ক্রেতাদের আগ্রহ বেশ ভালো। প্রতিদিনই কেউ না কেউ এসে বইটি খুঁজছেন।

পাশাপাশি পাঠকরা বলছেন, নানান জনগোষ্ঠীর নানান ভাষা রয়েছে। কিন্তু বেদে জনগোষ্ঠীর যে একটি আলাদা ভাষা রয়েছে, তা আমাদের অজানা ছিল। সেই আগ্রহ থেকেই এই ভিন্নধর্মী বইটি নেড়ে চেড়ে দেখা বা সংগ্রহ করা।

ডিআইজি হাবিবের মানবিকতা
মানিকগঞ্জের হরিরামপুরের হাট বাসুদেবপুর গ্রামে সান্দার বেদে গোত্রের প্রায় ২০০টি পরিবার স্থায়ীভাবে বসবাস করেন; যাদের শতভাগ মুসলমান। অথচ এই জনগোষ্ঠীর কেউ মারা গেলে মুসলমান হিসেবে তাদের সৎকার টুকুও করতে পারত না। পরিবারের কোনো সদস্য মারা গেলে আশপাশের কোনো কবরস্থানে তাদেরকে কবর দিতে দেওয়া হতো না। এমন করুণ অবস্থা জানতে পরে নিজেকে স্থির রাখতে পারেননি পুলিশের এই কর্মকর্তা। তিনি সহকর্মীদের সহযোগিতায় একটি জায়গা খুঁজে পান, যেটি কিনে দান করে দেন এই জনগোষ্ঠীর ২০০ পরিবারের কল্যাণে।

তাছাড়া ২০২০ সালের শুরুতে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়ায় বহু পুরনো যৌনপল্লীতে প্রথমবারের মতো একজন যৌনকর্মীর পুরোপুরি ইসলামি প্রথা মেনে জানাজা পড়িয়ে দাফন করা হয়। পরে চেহলামেরও আয়োজন করা হয়। এছাড়া তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হিসেবে করে দিয়েছেন পশু খামার। তাছাড়া অনেককে গার্মেন্টসে চাকরি, পার্লার ও খাবার দোকানের ব্যবসা গড়ে দিয়েছেন।

এসব উদ্যোগের নেতৃত্ব দেন মানবিক পুলিশ হিসেবে সুনাম পাওয়া ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান। এখন নতুনভাবে দৌলতদিয়ার যৌনপল্লীর শিশুদের জন্য কাজ শুরু করেছেন তিনি। যার সুফলও মিলছে। বিশেষ করে যৌনপল্লীর শত শত শিশুকে সমাজের মূলধারায় ফিরিয়ে আনতে কাজ করছে তার হাতে গড়া ‘উত্তরণ ফাউন্ডেশন।

রাজারবাগে মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর
ডিআইজি হাবিবুর রহমানের একক প্রচেষ্টায় রাজারবাগ পুলিশ লাইনে টেলিকম ভবনে প্রতিষ্ঠিত হয় পুলিশ মুক্তিযুদ্ধের জাদুঘর, যা এক ঐতিহাসিক স্থাপনা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার দায়বদ্ধতা থেকেই তার এই উদ্যোগ। ২০১৩ সালের ২৪ মার্চ এটি সর্বসাধারণের প্রবেশের জন্য উম্মুক্ত করে দেওয়া হয়। পরবর্তীতে ২০১৭ সালের ২৩ জানুয়ারি “জাতীয় পুলিশ সপ্তাহ ২০১৭”-এর উদ্বোধনের দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পুলিশ স্মৃতিস্তম্ভের ঠিক পাশেই নব-নির্মিত জাদুঘর ভবনের উদ্বোধন করেন।

যেখানে মুক্তিযুদ্ধের সময় পুলিশ সদস্যদের ব্যবহৃত রাইফেল, বন্দুক, মর্টারশেল, হাতব্যাগ, টুপি, চশমা, মানিব্যাগ, ইউনিফর্ম, বেল্ট, টাই, স্টিক, ডায়েরি, বই, পরিচয়পত্র, কলম, মেডেল, বাঁশি, মাফলার, জায়নামাজ, খাবারের প্লেট, পানির মগ, পানির গ্লাস, রেডিও, শার্ট, প্যান্ট, র‍্যাঙ্ক ব্যাজসহ টিউনিক সেট, ক্যামেরা, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, লোহার হেলমেট, হ্যান্ড মাইক, রক্তভেজা প্যান্ট-শার্ট, দেয়ালঘড়ি, এমএম রাইফেলসহ অনেক কিছু সংরক্ষণ আছে।

অধীনস্থদের প্রতি সহমর্মিতা ও নাগরিকদের পুলিশি সেবা
করোনাকালীন প্রায় প্রতিটি পুলিশ সদস্যকে ডিআইজি হাবিবুর রহমান নিজে মুঠোফোনে কল দিয়েছেন, খোঁজখবর নিয়েছেন, মনোবল বাড়ানোর জন্য অনুপ্রাণিত করেছেন। তাদের সুচিকিৎসা নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করছেন, পাঠিয়েছেন উপহার সামগ্রী। এমনকি সশরীরে মাঠে নেমেছেন জনগণকে সচেতন করার লক্ষ্যে। নিজ উদ্যোগ করোনায় কর্মহীন সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে করেছেন খাদ্য সহায়তা। ঈদে দুস্থদের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন ‘ঈদ সামগ্রী’। তার স্বকীয় প্রচেষ্টায় পুলিশ সম্পর্কে সমাজের নেতিবাচক দৃষ্টি ভঙ্গিকে পাল্টে দিয়েছেন। প্রশংসিত করেছেন সমকালীন পুলিশের প্রবণতা ও উদ্যমকে। বর্তমানে পুলিশের জনকল্যাণধর্মী ভূমিকার অন্যতম আইকন ডিআইজি হাবিবুর রহমান। তাই তো তিনি হয়ে উঠেছেন পুলিশের রোল মডেল। পুলিশ জনগণের প্রকৃত বন্ধু এই মূল মন্ত্রকে তার দূরদর্শী নেতৃত্বগুণে শতভাগ প্রতিপন্ন করেছেন।

নিজ রেঞ্জ এলাকার পুলিশের জরুরি রক্ত সরবরাহে খুলেছেন ‘ব্লাড ব্যাংক’। নিজ বাহিনীর সদস্যরাই সেখানে রক্ত দেন; পরে তা সংগ্রহ করে কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে রাখা হয়। পরবর্তীতে জরুরি প্রয়োজনে তা কাজে লাগান পুলিশ সদস্যরা।

সমাজ পরিবর্তনে, মানুষের কল্যাণে, মানবতার স্বার্থে পুলিশের কার্যকর ভূমিকা রাখতে অবিরাম কাজ করে চলেছেন এই মহান উদার মনের মানুষ পুলিশ কর্মকর্তা জনাব,হাবিবুর রহমান নামটি দেশের স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে আজীবন।

Share

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে নবগঠিত পুর্নাঙ্গ কমিটির শ্রদ্ধাঞ্জলি

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের শ্রদ্ধাঞ্জলি

গাইবান্ধা-০৫ আসনে নৌকার টিকেট পেলেন মাহমুদ হাসান রিপন

দৈনিক গণজাগরণ পএিকার প্রতিষ্ঠাতা প্রকাশক মরহুম অধ্যাপক জনাব,দীন মোহাম্মদ ভুঁইয়া সাহেবের মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে নিজ বাস ভবনে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে

পদ ক্ষমতার জন্য আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে আসেনি,এসেছি সমাজ থেকে সন্তাস,মাদক,ভূমিদস্যুদের নির্মুল করে সাধারণ মানুষের সেবা করতে ও দুঃখ দূর্দশা লাঘব করতে – মোঃ মামুন সাহেব

কুপ্রস্তাবের অভিযোগ করায় হাসপাতালের নারী কর্মীকে প্রাণনাশের হুমকি

বেনাপোল সীমান্তে ৩০ টি সোনার বার সহ ১ যুবক আটক

২ বছর ধরে স্বামী প্রবাসে, সন্তান প্রসবের পর হাসপাতাল থেকে পালালেন গৃহবধূ

দুমকির সেই কলেজের এডহক কমিটি গঠন

পাবনায় আওয়ামীলীগ নেতাকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে হত্যা

পটুয়াখালী জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলা আওয়ামীলীগে সভাপতির মনোনয়ন জমা

ডেমরা থানা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক পদে ব্যাপক আলোচনা কেন্দ্রবিন্দু সিফাত সাদেকিন চপল

“Press Release” Today is the 5 th Death Anniversary of Shaafi Hossain Chisty Yousha

তুরাগে মারা যাওয়ার ১০বছর পর এক হিজড়া সম্প্রদায়ের লাশ উত্তোলন

ঐতিহ্যবাহী ডেমরা থানা আওয়ামীলীগ ও ডেমরা থানা অর্ন্তভুক্ত দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন ৬৪/৬৬/৬৭/৬৮/৬৯/৭০ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন-২০২২ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে

পুলিশের উজ্জ্বল নক্ষত্র ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমান এক অনবদ্য নাম

ডিএসসিসি-৬৫ নং ওয়ার্ডে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার মাধ্যমে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছে রাজউক

রাজধানী মাতুয়াইল ও ডেমরা এলাকা অবৈধ গ্যাস লাইন নিয়ে বিষাক্ত রাসায়নিক পর্দাথে নিম্নমানের মশার কয়েল এর অসংখ্য কারখানা দীর্ঘদিনে রমরমা ব্যবসা করছে

এক সময় স্থানীয় বিএনপি নেত্রী থেকে বর্তমানে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর নিলুফা ইয়াসমিন লাকীর ময়লার বানিজ্য একচ্ছত্র আধিপত্য এবং নারী কাউন্সিলর হওয়ার নেপথ্যে কারা

আলোকিত মানুষ,রাজউকের ইমারত পরিদর্শক নির্মল মালো

চাদঁপুরের হাইমচরে চেয়ারম্যান কর্তৃক জেলেদের চাল পাচারকালে চালসহ আটক ১

রাজধানী ডেমরার হাজী বাদশা মিয়া রোডে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ মনিরের উৎপাতে অতিষ্ট এলাকাবাসী

গ্রাহকের টাকা নিয়ে নয়-ছয় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ই-অরেঞ্জের

প্রবাসীদের অর্থায়নে ঈদ উপহার বিতরণ

সেহরির সময় হলেই খাবারের ব্যাগ হাতে যুব অধিকার পরিষদ।

ডেমরায় সন্ত্রাসী কায়দায় বাড়িতে হামলা ও দোকান লুটপাটঃ গ্রেফতার ৩

ঢাকা-০৫ আসনে একাধিক প্রার্থীঃআলোচনার শীর্ষে নেহরীন মোস্থফা দিশি

আগে পণ্য পরে টাকা: স্বাগত জানাল কিউকম

ডেমরায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় অজ্ঞাতনামা অটোরিকশা চালক নিহত

ডেমরায় হেলথ কেয়ার হসপিটালে র‍্যাবের অভিযান

ডেমরায় হত্যাচেষ্টা মামলার মূল নায়ক প্রেমিক ফাহাদকে ধরতে তৎপর প্রশাসন,মিলছে না খোঁজ

নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর ‘ইভ্যালি’

দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন ডেমরা থানার তদন্ত অফিসার রফিকুল ইসলাম

দীর্ঘ দেড় যুগ পর চাঁদপুরের হাইমচর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা

নূর নবীকে ৫নং ওয়ার্ডের মেম্বার হিসাবে দেখতে চায় এলাকাবাসী

দেড় যুগ পর অবশেষে ডেমরা থানা ছাত্রলীগের প্রতিটি ওয়ার্ডের সফল কমিটি ঘোষিত

বরপা পিজিওন ক্লাবের পূর্নমিলণী ও সভা অনুষ্ঠিত

ডিএসসিসির ৬৪,৬৫ ও ৬৬ নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলরের টেন্ডার বানিজ্য,ভোগান্তির শিকার এলাকাবাসী

ছেলে ও ছেলের প্রেমিকাকে হত্যা করল বাবা!

বিজয়ের বর্ণিল সাজে সেজেছে কবি নজরুল কলেজে


উপরে